Breaking News

২০ ডিসেম্বর বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেবেন ৮০ জন সাঁতারু

টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ থেকে সেন্টমার্টিনের জেটির দূরত্ব ১৬.১ কিলোমিটার। এ জলপথটি বাংলা চ্যানেল নামে পরিচিত। সমুদ্রপথে এ দূরত্ব পাড়ি দিতে সেন্টমার্টিনগামী জাহাজগুলোরও সময় লাগে দেড় ঘন্টা। আর আগামীকাল ২০ ডিসেম্বর ২০২১ এ পথ সাঁতরে পাড়ি দিবেন ৮০ জন সুদক্ষ সাঁতারু। রোমাঞ্চকর এ সাঁতারের এটি ষোলতম আয়োজন। ফরচুন বাংলা চ্যানেল সাঁতারের আয়োজক যথারীতি ষড়জ অ্যাডভেঞ্চার ও এক্সট্রিম বাংলা।

বাংলা চ্যানেল সাঁতরে পাড়ি দেয়াকে ”বাংলাদেশের সেরা অ্যাডভেঞ্চার” বলে দাবী করে থাকেন আয়োজকরা। এদেশে অ্যাডভেঞ্চারের পথিকৃত কাজী হামিদুল হক দূরপাল্লার সাঁতারের জন্য খুজে বের করেন টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে সাঁতরে যাওয়ার মতো এ চ্যানেলটি। ২০০৬ সালের ১৪ ই জানুয়ারী প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হয় এ সাঁতারের। তারপর থেকে প্রতি বছরই এ চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে অংশগ্রহণ করেন দেশ বিদেশের সাঁতারুরা।

এবারের প্রতিযোগীদের একাংশ। ছবি: সাইফুল ইসলাম রাসেলের সৌজন্যে

কয়েকটি পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় এর প্রাথমিক বাছাই অনুষ্ঠিত হয়। এ বাছাইয়ের উত্তীর্ণ সুদক্ষ সাঁতারুরাই শুধু মূল পর্বে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়ে থাকেন। এ বছর সর্বোচ্চ সংখ্যক সাঁতারু মূল পর্বে অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন। গত বছর নভেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত পনেরতম আয়োজনে ৪৩ জন সাঁতারু অংশগ্রহণ করে ৩৯ জন সফলভাবে পাড়ি দিতে পেরেছিলেন। এবছর ৮০ জন অংশগ্রহণ করছেন।

দুজন “আয়রনম্যান” শামসুজ্জামান আরাফাত ও ইমতিয়াজ এলাহী অংশগ্রহণ করবেন এবারের আয়োজন, যার মধ্যে আরাফাত আগেও সাতবার অংশগ্রহণ করে সফলভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছিলেন। এছাড়া বাবা সৈয়দ আখতারুজ্জামানের সাথে এবার অংশগ্রহণ করছে তার দুই সন্তান সৈয়দ আরবিন আয়ান ও সৈয়দা লারিসা রোজেন। এর মধ্যে ছোট্ট লারিসার বয়স মাত্র ১০ বছর চার মাস। বাংলা চ্যানেল সাঁতারে সর্বকনিষ্ঠ সাঁতারু হিসেবে অংশ নিবে সে।

বাবা সৈয়দ আখতারুজ্জামানের সাথে ছেলে রায়ান ও মেয়ে লারিসা। আগামীকাল তিনজনই অংশগ্রহণ করছেন এ সাঁতারে ছবি: ফেইসবুক থেকে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৮ জন সাঁতারু অংশগ্রহণ করছে এবারের আয়োজনে যার মধ্যে একমাত্র ব্যক্তি হিসেবে বাংলা চ্যানেল ডাবল ক্রস করার রেকর্ডধারী সাইফুল ইসলাম রাসেলও রয়েছে। আগের বারের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ সংখ্যক সাঁতারুর অংশগ্রহণ করবে ইতিবাচক পরিবর্তন হিসেবে দেখছেন আয়োজকরা। রেকর্ড ১৭ বার বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেয়া লিপটন সরকার বলেন ”এই সাঁতার আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনেই পরিচালিত হবে। থাকবে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বাংলা চ্যানেল সাঁতারকে আমরা আন্তর্জাতিক রূপ দিতে পেরেছি আমরা।”

বাংলা চ্যানেল সবচেয়ে কম সময়ে পাড়ি দেবার রেকর্ড বগুড়ার রাব্বি রহমানের দখলে আছে। গতবছর মাত্র তিন ঘন্টা বিশ মিনিটে বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিতে পেরেছিলেন তিনি। আগামীকাল সকাল দশটায় শাহপরীর দ্বীপের পশ্চিম সৈকত থেকে শুরু হবে এ সাঁতার। বাংলা চ্যানেল সুইমিংয়ের ফেইসবুক পেইজ থেকে লাইভেও দেখা যাবে এই ইভেন্ট। পেইজ লিংক: https://www.facebook.com/BanglaChannelSwimming

ফিচার ছবি: বাংলা চ্যানেলের ফেইসবুক পেইজ থেকে 

About Muhammad Hossain Shobuj

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগ থেকে মাস্টার্স শেষ করে পরবর্তীতে আইবিএ থেকে এক্সিকিউটিভ এমবিএ করেছেন। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি উন্নয়ন সংস্থায় কাজ করেন। লেখালেখিটা শখের কাজ, ঘোরাঘুরিও। এ পর্যন্ত দেশের ৬৩ টি জেলা ও ১২ দেশে ঘুরেছেন।

Check Also

তরুণদের জন্য রোপ ফোরের পঞ্চম অ্যাডভেঞ্চার কোর্স ২৫-২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২

যুব উন্নয়ন ও তরুনদের মাঝে নেতৃত্বগুণ গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে Rope4 আয়োজন করতে যাচ্ছে Adventure …

Leave a Reply

Your email address will not be published.